শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী গৃহবধূর ধর্ষণ মামলায় কারাগারে কাজী মানিকগঞ্জে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে একই পরিবারের ছয়জনসহ নিহত ৭ কিশোরগঞ্জে নৈশ প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা আ’লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আ খ ম জাহাঙ্গীর করোনা আক্রান্ত সুস্থতার জন্য দোয়া মোনাজাত পাটকেলঘাটায় থানা পুলিশের উদ্যোগে ১০দলীয় ব্যাডমিন্টন  প্রতিযোগীতা অনুষ্টিত  বাঁকড়ায় নেতা কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন —সাবেক এমপি এ্যাড.মনিরুল ইসলাম মনির  কেশবপুরে শেখ ফজলুল হক মনির জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা কালিগঞ্জে জাতীয় হিন্দু মহাজোট কমিটির সভা অনুষ্ঠিত টাইম ম্যাগাজিনের ‘বর্ষসেরা শিশু’ গীতাঞ্জলি
কেশবপুরের মিঠা পানির মাছ ভারতের মার্কেটে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

কেশবপুরের মিঠা পানির মাছ ভারতের মার্কেটে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

Spread the love

কেশবপুর(যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের কেশবপুরের মিঠা পানির মাছ ভারতে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যে কারণে উৎপাদিত মাছের ভারতে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। তবে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে মাছ রপ্তানী হলে ব্যবসায়ীরা আরও বেশী সুবিধা পেত।

বৈষিক করোনার কারণে এপ্রিল থেকে জুন মাস পর্যন্ত রপ্তানী বন্ধ ছিল। গত তিন সপ্তাহ ধরে আবারও মাছ রপ্তানী শুরু হয়েছে। কেশবপুর থেকেও মাছ রপ্তানি শুরু হয়েছে। এনিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে ব্যস্ততা বেড়ে গেছে। প্রতিদিন প্রায় ১৮০ থেকে ১৮৫ মন মাছ সরবরাহ করা হয়।
কেশবপুর মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে কেশবপুরে ৪ হাজার ৬ শত ৫৮ মাছের ঘের রয়েছে। এর ফলে মাছের উৎপাদন ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে।
শিং,চিতল, রুই,সিলভার কার্প, কাতলা, গøাস কার্প ,বøাড কাপ ইত্যাদি মাছগুলো রপ্তানী করা হচ্ছে। মাছ ব্যবসায়ীরা জানান , ২৫ কেজি মাছ একটি ক্যারেটে (প্লাষ্টিকের ঝুড়ি) ধরে। সেটা প্যাকেট জাতকরণ করা হয়। প্রতি গাড়িতে ৩০০ টি ক্যারেট বহন করা যায়। প্রতিদিন প্রায় ১৮০ থেকে ১৮৫ মন মাছ সরবরাহ করা হয়। কেশবপুর মাছ বাজার গিয়ে দেখা যায় মাছ রপ্তানির জন্য মাছ প্যাকেট করা হচ্ছে।
কেশবপুর বাজারের মৎস্য ব্যবসায়ী আতিয়ার রহমান, মতিয়ার রহমান, মঈন উদ্দিন , ইকবাল হোসেন সহ আরো কয়েকজন ভারতের আখাউড়া স্থলবন্দর একজন এজেন্টের মাধ্যমে মাছ রপ্তানি করেন। মাছ ব্যবসায়ী আতিয়ার রহমান সাংবাদিকরে জানান ,ভারতে মিঠা পানির মাছের ব্যাপক চাহিদা থাকায় এখান থেকে মাছ পাঠানো হয়।

মাছ কাঁচা মাল তাই কখন লাভ হয় আবার ক্ষতি হয়। তবে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে মাছ পাঠাতে পারলে লাভ হতো। মাছ ব্যবসায়ী মতিয়ার রহমান বলেন,সরকারি ভাবে মাছ রপ্তানির জন্য প্রক্রিয়াজাত ও রপ্তানির জন্য সহযোগিতা করলে কেশবপুরের সাধারণ মৎস্য চাষীরা উপকৃত হবেন ও সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে ।

 646 total views,  1 views today


Tufan Convention Center & Resort Lack Views || Satkhira

তুফান কনভেনশন সেন্টার ও রিসোর্ট সাতক্ষীরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 songkalpo.Com
Design & Developed BY CodesHost Limited