বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
কলারোয়ায় মাষ্টার ব্যাডমিন্টন টূর্নামেন্টের সেমি ফাইনাল খেলা সম্পন্ন কলারোয়ায় পুলিশের অভিযানে ফেনসিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক গলাচিপায় জাতীয় ভাটার দিবস পালিত কলারোয়ার জালালাবাদ বাজার সংলগ্ন ৩টি দোকানে আগুন মাগুরায় বিদেশ নেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্বসাৎ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা,গ্রেপ্তার ২ সাতক্ষীরা সিটি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ইমদাদুল হক খুলনা বিভাগের শ্রেষ্ট রোভার স্কাউটস্্ কমিশনার নির্বাচিত কলারোয়ায় প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে লাবসা ক্রিকেট একাডেমি জয়ী ঝিনাইদহে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত বিলবোর্ড ভাংচুর ঝিনাইদহে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত শৈলকুপায় ভাড়াটিয়ার ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত দোকান মালিক
মণিরামপুরে অপহরনকারীদের জিম্মিদশা থেকে পালিয়ে রক্ষা পেল স্কুলছাত্র নাইম

মণিরামপুরে অপহরনকারীদের জিম্মিদশা থেকে পালিয়ে রক্ষা পেল স্কুলছাত্র নাইম

Spread the love

মণিরামপুর(যশোর)প্রতিনিধি :

যশোরের মণিরামপুরে অপহরনের পাঁচ ঘন্টা পর সোমবার রাত সাড়ে আটটার দিকে জিম্মিদশা থেকে বুদ্ধিমত্তায় পালিয়ে রক্ষা পেল স্কুল ছাত্র নাইম হোসেন। নাইম হোসেন উপজেলার খেদাপাড়া ইউনিয়নের গরিবপুর গ্রামের কৃষক মহসিন আলীর একমাত্র ছেলে। নাইম উপজেলার হেলাঞ্চী কৃঞ্চবাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরিক্ষার্থী।

নাইমের পিতা মহসিন আলী জানায়, প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার বিকেলে তিনটার দিকে তরি ছেলে বাড়ি থেকে হেটে হেলাঞ্চী গ্রামের শিক্ষক হেলাল উদ্দিনের কাছে প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। নাইম জানায়, পথিমধ্যে গরিবপুর শ্বশ্মানঘাটের কাছে পৌছলে পিছন থেকে দুইটি মোটরসাইকেলে করে চার যুবক এসে তার গতিরোধ করে।

এ সময় দুই যুবক নাইমকে মুখ বেঁধে জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে উঠিয়ে অপহরন করে নিয়ে যায়। নাইম জানায়, অপহরনের পর তাকে নিয়ে যশোর শহরের উপশহর এলাকায় তিনতলা একটি ভবনের নিচের পরিত্যক্ত একটি কক্ষে রাখা হয়।

এসময় ওই কক্ষে তার বয়সি আরো দুই কিশোরকে রাখা হয়। নাইম জানায়, সন্ধ্যার দিকে অপহরনকারী দুই যুবক তার মোবাইল থেকে নাইমের পিতার কাছে মুক্তিপন হিসেবে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এ খবরে নাইমের অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। বিষয়টি রাতে নাইমের পিতাসহ অভিভাবকরা থানা পুলিশকে অবহিত করে। পরে পুলিশ নাইমকে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন তৎপরতা শুরু করেন। এদিকে এক পর্যায়ে রাত আটটার দিকে পরিত্যক্ত ওই কক্ষের ভেন্টিলিটার ভেঙ্গে নাইম পালিয়ে আসে।

তবে ওই কক্ষে থাকা অপর দুই কিশোর সম্পর্কে নাইম কিছুই বলতে পারেনি। এক প্রশ্নের জবাবে নাইমের পিতা জানান, তার সাথে এলাকায় কারোর কোন শত্রুতা নেই। মণিরামপুর থানার ওসি(তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান জানান, বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

s

 378 total views,  1 views today


Tufan Convention Center & Resort Lack Views || Satkhira

তুফান কনভেনশন সেন্টার ও রিসোর্ট সাতক্ষীরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 songkalpo.Com
Design & Developed BY CodesHost Limited